মেনু নির্বাচন করুন
মিটিং

জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভার কার্যবিবরণী

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, বাগেরহাট

স্থানীয় সরকার শাখা

www.dcbagerhat.gov.bd

জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভার কার্যবিবরণী

 

তারিখ      :   ০৭ আগস্ট, ২০১২।

সময়       :   বিকাল ০৩.০০ টা।

স্থান       :   জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষ।

সভাপতি    :   মোঃ আকরাম হোসেন

              জেলা প্রশাসক

              বাগেরহাট।

 

উপস্থিত ও অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (নিজ নিজ স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে)-পরিশিষ্ট-ক

 

সভাপতি উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভার কাজ শুরু করেন। বাগেরহাট-০২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য এ সভায় উপস্থিত থাকায় তাঁকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়।  অতঃপর সভায় গত ০৪ জুলাই,২০১২ তারিখ অনুষ্ঠিত জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভার কার্যবিবরণী সভায় পঠিত হয়।কোন প্রকার সংশোধনী প্রস্তাব সভায় উত্থাপিত না হওয়ায় কার্যবিবরণী সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয়। এরপর উপ-পরিচালক, স্থানীয় সরকার, বাগেরহাট গত সভার সিদ্ধান্ত, সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে গৃহীত কার্যক্রম, চলমান উন্নয়ন প্রকল্প/ কর্মসূচি/ কার্যক্রম এবং আলোচনাযোগ্য বিষয়াদি সম্পর্কিত তথ্য মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে সভায় প্রদর্শন করেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক), বাগেরহাট সভা সঞ্চালন করেন।

 

অতঃপর বিভাগ-ভিত্তিক নিম্নবর্ণিত আলোচনা ও আলোচনাক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়ঃ

 

ক্রমিক নং

বিভাগের নাম

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নে

০১

০২

০৩

০৪

০৫

০১

স্বাস্থ্য বিভাগ

সিভিল সার্জন, বাগেরহাট সভায় বলেন, সদর হাসপাতালে প্রধান ৩টি পদ কনঃ মেডিসিন, কনঃ সার্জারী ও কনঃ এ্যানেসথেসিয়া শূণ্য থাকায় চিকিৎসা সেবা বিঘ্নিত হচ্ছে। এছাড়াও ২৪টি চিকিৎসকের পদের মধ্যে ১১টি চিকিৎসক পদ শূণ্য আছে।কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারগণ প্রশিক্ষণ শেষে ক্লিনিকে যোগদানপুর্বক  কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। সকল উপজেলা পরিষদে এডিপি ফান্ডে মা ও শিশু স্বাস্থ্য কার্যক্রমের জন্য কিছু অর্থ বরাদ্দ থাকে যা দিয়ে জনগণের সেবা নিশ্চিৎকরনকল্পে যাতায়াতের জন্য রাস্তা নির্মাণ সহায়তা প্রদান করার সুযোগ রয়েছে। সে লক্ষ্যে এ সভার সিদ্ধান্ত/দিকনির্দেশনা প্রয়োজন। বাগেরহাট সদর হাসপাতালের ভর্তি রোগীর সংখ্যা-৪১১৮ জন ও বর্হি: বিভাগে সেবা গ্রহণকারীর সংখ্যা-৪৫,৬৬৮ জন।বাগেরহাট জেলার হাসপাতালসমুহের প্রসুতী সংক্রান্ত এএনসি গ্রহীতার সংখ্যা ৮৮৮৯জন, স্বাভাবিক প্রসব ১৭০জন, সিজার-৩৫জন, মোট প্রসব-২০৫ জন। সদর হাসপাতাল হতে রেফারকৃত রোগীর সংখ্যা ৭০(ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৮৯৬ জন ও বর্হি: বিভাগে সেবা গ্রহণকারীর সংখ্যা ৯৪১০ জন এর মধ্যে)। ডায়রিয়া আক্রান্ত ও চিকিৎসা প্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা-২৬১১৭জন। কোন মৃত্যু নেই।

 

 

সিভিল সার্জন, বাগেরহাট চিকিৎসক পদায়নের পত্রালাপ অব্যাহত রাখবেন এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসারগন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে এডিপির স্বাস্থ্য খাতের অর্থ দ্বারা উপজেলা পর্যায়ে উন্নয়ন কাজ সম্পাদন করবেন।

 

সিভিল সার্জন, বাগেরহাট

নির্বাহী অফিসারগন

 

 

০২

ক্রমিক নং

বিভাগের নাম

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নে

০১

০২

০৩

০৪

০৫

০২

জেলা পরিষদ

প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা পরিষদ, বাগেরহাট এর প্রতিনিধি সভায় বলেন, এডিপি ও রাজস্ব বরাদ্দ এর অধিনে প্রকল্পের কার্যক্রম চলছে। অগ্রগতি-রাজস্ব-১০০% এবং এডিপি-৯৫%। যে সকল পুকুরের পানি স্থানীয় জনগণ পানীয় জল হিসেবে ব্যবহার করেন না, সেগুলি ইজারা প্রদানের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ২১৬টি পুকুরের তালিকা তৈরি করা হয়েছে।

 

প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা পরিষদ, বাগেরহাট বিভাগীয় কার্যক্রমের এ ধারা অব্যাহত রাখবেন।

প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা পরিষদ, বাগেরহাট

০৩

সড়ক ও জনপথ বিভাগ

 

নির্বাহী প্রকৌশলী, সড়ক ও জনপথ বিভাগ, বাগেরহাট সভায় বলেন, ২০১২-২০১৩ অর্থ-বছরে এডিপিভূক্ত সাইনবোর্ড-মোড়েলগঞ্জ-রায়েন্দা-শরণখোলা-বগীসড়ক কে আঞ্চলিক মহাসড়কে উন্নীতকরণ প্রকল্পে প্রাপ্ত বরাদ্দ ৫০০.০০ লক্ষ টাকা।সড়ক প্রশস্থকরণ,মজবুতী করণ, বিদ্যমান পেভমেন্টসহ অন্যান্য কাজের দরপত্র আহবান করে যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট অনুমোদনের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। পিরোজপুর-গোপালগঞ্জ (ঘোনাপাড়া)সড়ক উন্নয়ন ও শেখ লুৎফর রহমান সেতু (পাটগাতী সেতু) নির্মাণ প্রকল্পের বাগেরহাট অংশের কাজ প্রায় সমাপ্তির পথে, বর্তমানে সার্ফেসিং কাজ চলমান।চিতলমারী-ফকিরহাট (ফলতিতা) সড়ক উন্নয়ন শীর্ষক প্রকল্পে বরাদ্দ ৫০০.০০ লক্ষ টাকা ।সম্পূর্ন সড়কের ফেক্সিবল পেভমেন্ট কাজ চলছে। জেলা সড়ক (খুলনা জোন) উন্নয়ন প্রকল্পের ০৫টি উপ-প্রকল্পের ভিন্ন ভিন্ন সড়কের বিভিন্ন উন্নয়নমুলক কাজের দরপত্র আহবান করত: অনুমোদনের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট প্রেরণ করা হয়েছে।সওজ নেটওয়ার্কে অন্তর্ভূক্ত ২টি সেতু যথা-রায়েন্দা সেতু জনগণের ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। কচুয়া সেতুর মূল নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হয়েছে। নাজিরপুর প্রান্তের এপ্রোচ সড়কের কাজ চলছে। বৃহদাকারে রক্ষণাবেক্ষণ (পিএমপি) কর্মসূচীর আওতায় উপ-প্রকল্প-২টি (খুলনা-মংলা জাতীয় মহাসড়ক ও নওয়াপাড়া-বাগেরহাট-পিরোজপুর আঞ্চলিক মহাসড়ক) এর ওভারলে কাজের কার্যাদেশ প্রদান করা হয়েছে। ২০১২-১৩ অর্থ বছরে রক্ষণাবেক্ষণ খাতে বরাদ্দ পাওয়া যায়নি। বরাদ্দ প্রাপ্তি সাপেক্ষে কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে। তিনি আরো বলেন, অতি বর্ষনের কারণে বাগেরহাট-রূপসা মহাসড়কের কাটাখালি-কুদিরবটতলা সড়কাংশের কাজ বিলম্বিত হচ্ছে। তবে তিনি কঠোর মনিটরিং অব্যাহত রেখেছেন।

 

নির্বাহী প্রকৌশলী, সড়ক ও জনপথ বিভাগ, বাগেরহাট-রূপসা মহাসড়কের কাটাখালি-কুদিরবটতলা সড়কাংশের কাজ ত্বরান্বিত করণের লক্ষ্যে মনিটরিং জোরদার করবেন। এবং বিভাগীয় কার্যক্রমের এ ধারা অব্যাহত রাখবেন।

নির্বাহী প্রকৌশলী, সড়ক ও জনপথ বিভাগ, বাগেরহাট

০৪

গণপূর্ত বিভাগ

 

নির্বাহী প্রকৌশলী, গণপূর্ত বিভাগ,বাগেরহাট সভায় বলেন, শরণখোলা উপজেলা ফায়ার ষ্টেশন নির্মাণ কাজের অগ্রগতি-১০০%।১০/৭/১২ তারিখে হস্তান্তর করা হয়েছে।সদর উপজেলা ফায়ার ষ্টেশন নির্মাণ কাজের অগ্রগতি-১০০%।হস্তান্তর গ্রহণের জন্য পত্র দেয়া হয়েছে।

 

 

 


০৩

ক্রমিক নং

বিভাগের নাম

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নে

০১

০২

০৩

০৪

০৫

 

 

মোড়েলগঞ্জ উপজেলার সাব-রেজিষ্ট্রী অফিস ভবন নির্মাণকল্পে জেলা রেজিস্টার বাগেরহাট বরাবর প্রস্তাবিত ভূমির ব্লু প্রিন্ট ও লে আউট প্লান প্রেরণ করা হয়েছে।ফকিরহাট মডেল থানা নির্মাণ  কাজের অগ্রগতি ২০%। বাগেরহাট জেলায় ইনষ্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজীর স্থায়ী অবকাঠামো নির্মাণ কাজের অগ্রগতি ২০%। কাটাখালী হাইওয়ে (প্রস্তাবিত) থানা ভবন নির্মাণ কাজের পূন:দরপত্র গ্রহণ করা হয়েছে।রামপাল উপজেলায় খাদ্য অধিদপ্তর ঢাকা কর্তৃক ১.৩৫ লক্ষ মে;টন ধারন ক্ষমতা সম্পন্ন নতুন ফুড গোডাউন নির্মান প্রকল্পে কারিগরি সহয়তা অব্যাহত আছে। মাটি ভরাট ৮৫% সম্পন্ন হয়েছে। ডিপিডি জানিয়েছেন, Pileএর অনুমোদন দিয়েছেন। ঠিকাদারকে পত্র দেয়া হয়েছে। ঠিকাদার কাজ বন্ধ রেখেছেন। বিষয়টি ডিপিডিকে অবহিত করা হয়েছে।মোংলা উপজেলায় ১ম শ্রেনীর আবহাওয়া পর্যবেক্ষনাগারের অফিস ভবনের মেরামত/নির্মাণ ও সংস্কার কাজের অগ্রগতি ৬০%।সদর উপজেলার কাড়াপাড়া দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য হোস্টেল নির্মাণ(৩৭-ইউনিট) র্শীষক প্রকল্পের মধ্যে কাড়াপাড়া হাইস্কুল নির্মাণ প্রকল্পে ৬ শতক জমি পাওয়া গেছে।কাজ চলমান রয়েছে। কাজের অগ্রগতি-৩০%। বাগেরহাট জেলা সার্ভার ষ্টেশন(টাইফ-এফ) নির্মাণ কাজের সি.আর.টি.এস খুলনা কর্তৃক ৩টি পয়েন্টের মাটি পরীক্ষা করা হয়েছে।

চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, রামপাল সভায় বলেন, রামপাল ফুড গোডাউনের কাজ শুরু হচ্ছে না। তিনি এ বিষয়ে নির্বাহী প্রকৌশলীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। নির্বাহী প্রকৌশলী বলেন, ঢাকাস্থ প্রধান কার্যালয় থেকে কাজটির টেন্ডার করা হয়েছে। ইতোমধ্যে প্রকল্প এলাকায় মাটি ভরাটের কাজ শেষ পর্যায়ে। বাগেরহাটের গণপূর্ত বিভাগ মনিটরিং অব্যাহত রেখেছে।

নির্বাহী প্রকৌশলী, গণপূর্ত বিভাগ, বাগেরহাট বিভাগীয় কার্যক্রমের এ ধারা অব্যাহত রাখবেন।

নির্বাহী প্রকৌশলী, গণপূর্ত বিভাগ, বাগেরহাট

০৫

স্থাণীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর

 

নির্বাহী প্রকৌশলী, এলজিইডি, বাগেরহাট সভায় বলেন, পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন শীর্ষক প্রকল্প ২য় খন্ড (২০১১-১২)- এ গৃহীত ও চলমান প্রকল্প-১টি, অগ্রগতি-২৫%। পল্লী সড়ক ও কালভার্ট মেরামত কর্মসূচিতে স্কীম বাছাই চলছে। উপজেলা/ইউনিয়ন সড়কে সেতু/কালভার্ট নির্মাণ/পূন:নির্মাণ সওজ হতে স্থানান্তরিত প্রকল্প ৭টির মধ্যে ১টি সমাপ্ত হয়েছে। বাকি ৬টির কাজ চলছে। অগ্রগতি-২০%। ইউনিয়ন অবকাঠামো উন্নয়ন(খুলনা,বাগেরহাট ও সাতক্ষীরা জেলা) শীর্ষক প্রকল্প ৬৭টির মধ্যে ৩০টি সমাপ্ত হয়েছে এবং ৩৭টির কাজ চলছে। অগ্রগতি-৩০%। পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন(খুলনা,বাগেরহাট ও সাতক্ষীরা জেলা) শীর্ষক প্রকল্প ৩৯টির কাজ চলমান আছে। অগ্রগতি-২০%। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো উন্নয়ন শীর্ষক ৯৮টি প্রকল্পের কাজ চলমান। অগ্রগতি-২০%। উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়কে দীর্ঘ সেতু নির্মাণ শীর্ষক ২টি প্রকল্পের কাজ চলছে। অগ্রগতি-২০%।

 

 

 


০৪

ক্রমিক নং

বিভাগের নাম

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নে

০১

০২

০৩

০৪

০৫

 

 

জরুরি সাইক্লোন রিকভারি এন্ড রেষ্টোরেশন শীর্ষক ২৫ টি প্রকল্পের কাজ চলছে। অগ্রগতি-১০%। দক্ষিণ- পশ্চিমাঞ্চলীয় গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন ৩১টি প্রকল্পের কাজ চলছে। অগ্রগতি-১৫%। আইলায় ক্ষতিগ্রস্থ  গ্রামীণ অবকাঠামো পূনর্বাসন ১৮টি প্রকল্পের ৫টির কাজ শেষ হয়েছে। ১৩টির কাজ চলছে। অগ্রগ্রতি-৩০%। এ্যাপ্রোচলেস ব্রীজ/কালভার্ট এর ৩টি প্রকল্পের কাজ চলছে। অগ্রগতি-৫০%। উপজেলা সড়ক উন্নয়ন ২টি প্রকল্পের কাজ চলছে। অগ্রগতি-৬৫%। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গ্রামীণ সড়ক ও হাট-বাজার অবকাঠামো উন্নয়ন শীর্ষক ৫টি প্রকল্পের কাজ চলছে। এছাড়া রুরাল এমপ্লয়মেন্ট এন্ড রোড মেইন্টেনেন্স শীর্ষক প্রকল্পে ৭৫টি ইউনিয়নে ১০জন করে ৭৫০ জন দু:স্থ মহিলা ও প্রতি উপজেলায় ২জন করে ১৮জন সুপারভাইজার নিযুক্ত আছেন।

মেয়র, বাগেরহাট পৌরসভা সভায় বলেন, পূর্ব সায়েড়া রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার করা প্রয়োজন। চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ বাগেরহাট সদর সভায় বলেন, উপজেলার সামনের সড়কটি ও বাদামতলা সড়কটির দ্রুত সংস্কার করা প্রয়োজন।

 

নির্বাহী প্রকৌশলী, এলজিইডি, বাগেরহাটপূর্ব সায়েড়া রাস্তাটি এবং সদর উপজেলার সামনের সড়ক ও বাদামতলা সড়কটির দ্রুত সংস্কারের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

নির্বাহী প্রকৌশলী, এলজিইডি, বাগেরহাট

০৬

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর

 

নির্বাহী প্রকৌশলী, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, বাগেরহাট সভায় বলেন, বাগেরহাটজেলাররামপালউপজেলারপেড়িখালীপি,ইউ,মাধ্যমিকবিদ্যালয়েরনির্মাণকাজেরঅগ্রগতি৯৭%, পবনতলাবালিকামাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মানকাজেরঅগ্রগতি৪০%,বাইনতলাইউনিয়নমাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মানকাজেরঅগ্রগতি৩০%, তুলশীরাবাদকে,ইউ,এমমাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি৩৫%,শগুনামাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি৩৫%,চিতলমারীউপজেলারচিতলমারীএস,এমমাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মানকাজেরঅগ্রগতি৯২%, ত্রিপল্লীমাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি  ৮৫%,শৈলদাহএসইএসডিপিমডেলমাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি১৫%, হিজলামাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাকাজেরঅগ্রগতি০%,বাহিরদশমহলবালিকামাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মানকাজেরঅগ্রগতি৮০%,চরকচুড়িয়াদাখিলমাদ্রাসারনির্মানকাজেরঅগ্রগতি০%,কচুয়াউপজেলারগজালিয়াআদর্শ্মাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মানকাজেরঅগ্রগতি৯০%, নূরজাহানদাখিলমাদ্রাসারনির্মানকাজেরঅগ্রগতি০%,বাগেরহাটজেলারসদরউপজেলারআমলাপাড়ামাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি৮৫%, আদর্শ্মাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি৬৫%, কে,এম, বাদোখালীমাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি০%, বাগেরহাটকামিলমাদ্রাসারনির্মাণকাজেরঅগ্রগতি০%,সহকারীপ্রকৌশলীরকার্য্যালয়,ইইডি,বাগেরহাটনির্মাণকাজেরঅগ্রগতি৯০%,ফকিরহাটউপজেলারডহরমৌভগমাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি৫০%, বেতাগাইউনাইটেডএম,এলমাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি৫০%,

 

 

০৫

ক্রমিক নং

বিভাগের নাম

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নে

০১

০২

০৩

০৪

০৫

 

 

শেখহেলালউদ্দিনডিগ্রীকলেজেরপ্রশাসনিককামএকাডেমিকভবননির্মাণকাজেরঅগ্রগতি০%, ভবনাইসলামিয়াদাখিলমাদ্রাসারনির্মাণকাজেরঅগ্রগতি০%, মোড়েলগঞ্জউপজেলারএ,সি,লাহাপাইলটহাইস্কুলনির্মাণকাজেরঅগ্রগতি  ৩০%, দক্ষিনসুতালড়ীএইচ,এম,জে,কে,এমমাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি১০%, এস,পিরশিদিয়ামাধ্যমিকবিদ্যালয়নির্মাণকাজেরঅগ্রগতি৬০%।আপাতত উল্লেখযোগ্য কোন সমস্যা নেই।

 

নির্বাহী প্রকৌশলী, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, বাগেরহাট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নির্মাণ/ সংস্কার কাজের গুনগত মান সঠিক ও সমুন্নত রাখার জন্য মনিটরিং জোরদার করবেন।

নির্বাহী প্রকৌশলী, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, বাগেরহাট

০৭

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর

 

নির্বাহী প্রকৌশলী, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, বাগেরহাট সভায় বলেন, ২০১২-১৩ অর্থ বছরে (১) বিশেষ গ্রামীণ পানি সরবরাহ প্রকল্পে কোন বরাদ্দ পাওয়া যায়নি। (২) দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে গ্রামীণ পানি সরবরাহ প্রকল্প খাতে চলতি অর্থ-বছরে ১০০টি পিএসএফ, ৩০ টি এসএসটি/ভিএসএসটি, ১৬৫টি রেইন ওয়াটার হারভেস্টার বরাদ্দ পাওয়া গেছে। সিডর আক্রান্ত এলাকায় পানি সরবরাহ ও সেনিটেশন প্রকল্পের আওতায় ২৩৫টিগভীর নলকুপ, ৫৫টি পিএসএফ, ১১৫টি এসএসটি/ভিএসএসটি ও ১৭৫টি রেইন ওয়াটার হারভেস্টার বরাদ্দ পাওয়া গেছে। যার প্রাক্কলণ উর্দ্ধতন কর্তপক্ষের নিকট প্রেরণ করা হয়েছে। পিইডিপি-৩ প্রকল্পে ৩৮টি গভীর নলকুপ বরাদ্দ পাওয়া গেছে যার মালামাল পরীক্ষার জন্য কুয়েটে প্রেরণ করা হয়েছে। মোংলাপোর্ট পৌরসভায় পানি সরবরাহ ও এনভায়রনমেন্টাল স্যানিটেশন প্রকল্পের 2nd Phaseঅনুমোদনের জন্য পরিকল্পনা কমিশনে সক্রিয় বিবেচনাধীন রয়েছে।এছাড়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সুপেয় পানির চাহিদা পূরণের জন্য দিঘী/পুকুর খনন/পুনঃখননের জন্য প্রকল্প গ্রহণ করতে অধিদপ্তরে প্রস্তাব প্রেরণ করা হয়েছে। গ্রামীন পানি সরবরাহ প্রকল্পের আওতায় কচুয়া উপজেলায় সারফেস ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট, ওভারহেড ট্যান্ক ও অন্যান্য কাজ চলছে।

 

নির্বাহী প্রকৌশলী, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী অধিদপ্তর, বাগেরহাট বিভাগীয় কার্যক্রমের ধারা অব্যাহত রাখবেন।

নির্বাহী প্রকৌশলী, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী অধিদপ্তর, বাগেরহাট

০৮

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগ

বিভাগীয় বন কর্মকর্তা, সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগ, বাগেরহাট সভায় বলেন, সাইক্লোন সেল্টার মেরামত/সংস্কারসহ নতুন সাইক্লোন সেল্টার নির্মাণের বিষয়ে নির্বাহী প্রকৌশলী, এলজিইডি, বাগেরহাটের সাথে পত্রালাপ করা হয়েছে।করমজলে মসজিদ নির্মাণের কাজ অব্যাহত আছে। শরনখোলা, মোংলা ও মোড়েলগঞ্জ উপজেলায় সংরক্ষিত সুন্দরবন অঞ্চলে সীলস প্রকল্প চলমান আছে। ২০১২-১৩ আর্থিক সনের উন্নয়নমূলক কাজের কর্মপরিকল্পনা প্রনয়নের কাজ চলমান আছে।

বিভাগীয় বন কর্মকর্তা, সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগ, বাগেরহাট বিভাগীয় কার্যক্রমের এ ধারা অব্যাহত রাখবেন। নির্বাহী প্রকৌশলী এলজিইডি, বাগেরহাট দুবলার চরে প্রয়োজনীয় সাইক্লোন শেল্টার নির্মাণের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

বিভাগীয় বন কর্মকর্তা, সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগ, বাগেরহাট

নির্বাহী প্রকৌশলী এলজিইডি, বাগেরহাট

০৯

কৃষি বিভাগ

উপ-পরিচালক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, বাগেরহাট সভায় বলেন, খরিপ-২ মৌসুমে জাতীয়ভাবে এ জেলায় সর্বমোট ৬৯০৬৮ হে: জমিতে (উফশী-২৯৩৮২হে:, স্থানীয় জাত-৩৯৬৮৬হে:) রোপা আমন আবাদের লক্ষমাত্রা ধার্য করা হয়েছে।

 

 

 

০৬

ক্রমিক নং

বিভাগের নাম

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নে

০১

০২

০৩

০৪

০৫

 

 

বিভিন্ন উপজেলায় এ পর্যন্ত সর্বমোট ৫০৩০ হে: জমিতে (উফশী-১৮৭০হে:, স্থানীয় জাত-৩১৬০হে:)রোপা আমনের বীজতলা তৈরি করা হয়েছে। এ ছাড়া২১৮৫হে: জমিতে(উফশী-১৯৪০হে:, স্থানীয় জাত-২৪৫হে:) আমন রোপন করা হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূল থাকলে আবাদের লক্ষমাত্রা অর্জিত হবে বলে আশা করা যায়। সকল প্রকার রাসায়নিক সারের সরবরাহ ও মজুদ পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। মনিটরিং চলছে। ৫/৮/১২ তারিখ পর্যন্ত ইউরিয়া-৫৩৮ মে:টন, টিএসপি-১৯০মে:টন, ডিএপি-৩৮ মে:টন,এমওপি-১০৮ মে:টন, জিপসাম-১৫ মে:টন, জিংক-১০ মে:টন ও এনপিকেএস-১৮ মে:টন সার মজুদ আছে।

 

উপ-পরিচালক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, বাগেরহাট সার ও বীজ মনিটরিং অব্যাহত রাখবেন।আমন ফসল আবাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

উপ-পরিচালক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, বাগেরহাট

১০

বাগেরহাট পল্লী বিদ্যুসমিতি

জেনারেল ম্যানেজার, পল্লী বিদ্যুৎসমিতি, বাগেরহাট সভায় বলেন, বাগেরহাট জেলার ০৭টি উপকেন্দ্রে মোট বিদ্যুতায়িত গ্রামের সংখ্যা ৫৫১টি। নির্মিত লাইন ৩১৪৯ কিঃমিঃ। মোট গ্রাহকের সংখ্যা ১,০৮,০৮০ জন। সরকারি অফিস/আদালতের নিকট বড় ধরনের বকেয়ার মধ্যে বাগেরহাট পৌরসভার নিকট নভেম্বর/১১ হতে ডিসেম্বর/১১,জানুয়ারি/১২ থেকে জুন/১২ পর্যন্ত (৮ মাস) ২০,৯১,০৬১/- টাকা। এ বকেয়া বিল পরিশোধের জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

যে সকল ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্রে বিদ্যূৎসংযোগ নেই জরুরি ভিত্তিতে সে গুলোতে বিদ্যূৎসংযোগ প্রদানের বিষয়ে জেনারেল ম্যানেজার, পল্লী বিদ্যুৎসমিতি, বাগেরহাট/ পিরোজপুর যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।এছাড়া বকেয়া বিদ্যুৎবিল পরিশোধের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্ট সকল বিভাগীয় প্রধানগণকে অনুরোধ করা হয়।

ম্যানেজার, পল্লী বিদ্যুৎসমিতি, বাগেরহাট/ পিরোজপুর

সংশ্লিষ্ট সকল বিভাগীয় প্রধান

১১

পানি উন্নয়ন বোর্ড

নির্বাহীপ্রকৌশলী, পানিউন্নয়নবোর্ড, বাগেরহাটএরপ্রতিনিধিসভায়বলেন, ওয়ামিপ প্রকল্পের আওতায় পোল্ডার নং-৩৬/১ এর আস্তাইল এলাকায় ৩০০ মিটার নদীর তীর সংরক্ষণ কাজের অগ্রগতি ১৫% ।পোল্ডার নং-৩৫/১ এর ৭.০১০ কিঃমিঃ বাঁধ মেরামত ও বাঁধের স্লোপ প্রতিরক্ষা কাজের দরপত্র গৃহীত হয়েছে। দরপত্র মূল্যায়ন চলছে। ওয়ামিপ প্রকল্পের আওতায় পোল্ডার নং-৩৬/১ এর ১৩.১০ কিঃমিঃ বাঁধ মেরামত, ১টি স্লুইচ গেট নির্মাণ, ৪টি স্লুইচ মেরামত কাজের অগ্রগতি ৬০%।পোল্ডার নং-৩৫/৩ এর ২২.০০ কিঃমিঃ বাঁধ মেরামত ও ২.৩৫ কি:মি: নদীর তীর সংরক্ষণ কাজের দরপত্র গৃহীত হয়েছে।দরপত্র মূল্যায়ন চলছে। এছাড়া ওয়ামিপ প্রকল্পের আওতায় মোড়েলগঞ্জ এলাকার ০.৯৩৬কি:মি: নদী তীর সংরক্ষণ কাজের পুন: দরপত্র গৃহীত হয়েছে।  মূল্যায়ন চলছে। আইলা প্রকল্পের আওতায় ১ টি ক্লোজার নির্মাণের কাজ চলছে।(কুমারী জোলা ক্লোজারের অগ্রগতি ৮০%) এবং -৩৫/১ পোল্ডারের ১.১৩৫ কি:মি: বাঁধের স্লোপ প্রতিরক্ষা কাজের অগ্রগতি ৭৫%।আইলা প্রকল্পের আওতায় ৭টি রেগুলেটর মেরামত কাজের কার্যদেশ দেয়া হয়েছে।

নির্বাহীপ্রকৌশলী, পানিউন্নয়নবোর্ড, বাগেরহাটবিভাগীয়কার্যক্রমেরএধারাঅব্যাহতরাখবেন।

নির্বাহীপ্রকৌশলী, পানিউন্নয়নবোর্ড, বাগেরহাট

 

০৭

ক্রমিক নং

বিভাগের নাম

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নে

০১

০২

০৩

০৪

০৫

১২

বিআরডিবি

উপ-পরিচালক, বিআরডিবি, বাগেরহাট সভায় বলেন, ২০১১-১২ অর্থ বছরে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পে সম্প্রসারিত কর্মসূচির আওতায় প্রতিটি উপজেলার পূর্বে গৃহীত ৪টি ইউনিয়নে ৪টি করে গ্রাম নির্বাচন তথা প্রতি উপজেলাতে ১৬টি গ্রাম নির্বাচনের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। আইজিএ ভিত্তিক ৪ টি বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে।ঋণ বিতরণ কার্যক্রম চলছে। জুলাই/১২ মাস পর্যন্ত ১২৩টি সমিতির ২৬৫৯ জন সদস্যের মধ্যে ২৩৩.১৯ লক্ষ টাকা বিতরন করা হয়েছে।এছাড়া বিভাগীয় অন্যান্য কার্যক্রম যথা ঋণদান,ঋণ আদায়, পল্লী প্রগতি প্রকল্প, মুক্তিযোদ্ধাদের পোষ্যদের প্রশিক্ষণ ও আত্বকর্মসংস্থান, আদর্শগ্রাম, দুস্থ পরিবার উন্নয়ন, গ্রামীণ মহিলাদের আত্বকর্মসংস্থান, পিআরডিবি,সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন ইত্যাদি কার্যক্রম যথারীতি সম্পাদিত হচ্ছে। 

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসারবৃন্দ এবং উপ-পরিচালক, বিআরডিবি, বাগেরহাট একটি বাড়ি একটি খামার কর্মসূচি যথাযথভাবে বাস্তবায়ন নিশ্চিত করবেন।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান,

 উপজেলা নির্বাহী অফিসারবৃন্দ

 উপ-পরিচালক, বিআরডিবি, বাগেরহাট

১৩

খাদ্য বিভাগ

 

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক, বাগেরহাট সভায় বলেন, চিতলমারী উপজেলায় কোন সরকারি খাদ্য গুদাম নাই, তবে এ বিষয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষের সাথে পত্র যোগাযোগ করা হয়েছে  বোরো সংগ্রহ/১২ কার্যক্রম অব্যাহত আছে। এ পর্যন্ত ১৩৮৫ মে:টন ধান ও ৭৬৫.৫৯০ মে: টন চাল সংগ্রহ করা হয়েছে।মোংলা, মোড়েলগঞ্জ ও রায়েন্দা খাদ্য গুদাম অভ্যন্তরে পানি প্রবেশরোধকল্পে গুদামের ফ্লোর উচু করা প্রয়োজন। এ ছাড়া সদর খাদ্য গুদামের বাউন্ডারি ওয়াল মেরামত করা প্রয়োজন।মোড়েলগঞ্জ খাদ্য গুদামে যাতায়াতের জন্য কোন রাস্তা না থাকায় ব্যক্তি মালিকানা জায়গা দিয়ে মালামাল পরিবহন করতে হয়। গুদাম সম্মুখে যে খাল আছে উক্ত খাল এর পার্শ্বে পিলার বসায়ে রাস্তা তৈরি করা একান্ত জরুরি।

 

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক, বাগেরহাট বোরো সংগ্রহ/ ১২-এর লক্ষ্যমাত্রা অর্জন নিশ্চিতের বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। আলোচিত অন্যান্য সমস্যাগুলো নিরসনের জন্য নির্বাহী প্রকৌশলী,গণপূর্ত বিভাগ,বাগেরহাটি এর সাথে পত্রালাপ করবেন। এছাড়া মোড়েলগঞ্জ খাদ্য গুদামে যাতায়াতের জন্য উত্থাপিত জায়গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরেজমিনে পরিদর্শন করে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক, বাগেরহাট

উপজেলা নির্বাহী অফিসার,মোড়েলগঞ্জ

১৪

পল্লী দারিদ্র বিমোচন ফাউন্ডেশন

 

উপ-পরিচালক এর প্রতিনিধি সভায় বলেন, বাগেরহাট জেলার ৫টি উপজেলায় ক্ষুদ্র ঋণ বিতরণ ও সৌরশক্তি ( সোলার হোম সিস্টেম) স্থাপন কার্যক্রমের আওতায় বাগেরহাট সদরে-১৪০টি,কচুয়ায়-৫৪টি,চিতলমারী-৭২টি,শরণখোলায়-৩৭০টি এবং মোড়েলগঞ্জে-৪১৪টি সোলার হোম স্থাপন করা হয়েছে।

উপ-পরিচালক, পল্লী দারিদ্র বিমোচন ফাউন্ডেশন, বাগেরহাট বিভাগীয় কার্যক্রমের এ ধারা অব্যাহত রাখবেন।

উপ-পরিচালক, পল্লী দারিদ্র

জেলা প্রশাসনের শাখা

স্থানীয় সরকার


Share with :

Facebook Twitter